ইসলামী ফ্রন্ট চট্টগ্রাম মহানগর দক্ষিণের মানববন্ধন অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত: 7:44 AM, April 9, 2021

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূলোর চরম উর্ধ্বগতিতে জনজীবন অতিষ্ঠ
নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্যদ্রব্য লাগামহীন, গণপরিবহনে ভাড়া বৃদ্ধির প্রতিবাদে বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট চট্টগ্রাম মহানগর দক্ষিণের উদ্যাগে ৮ এপ্রিল, বৃহস্পতিবার নগরী চাকতাই- খাতুনগঞ্জ মহাসড়কে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা ইসলামী ফ্রন্ট চট্টগ্রাম মহানগর দক্ষিণের সিনিয়র সহ-সভাপতি মাওলানা গিয়াস উদ্দিন নেজামীর সভাপতিত্বে নির্বাহী সদস্য কে.এম. নুর উদ্দিন চৌধুরীর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত হয়। এতে বক্তব্য রাখেন, ইসলামী ফ্রন্ট চট্টগ্রাম মহানগর দক্ষিণের সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আলমগীর ইসলাম বঈদী, মহানগর উত্তরের আহবায়ক কমিটির সদস্য মাওলানা সোহাইল উদ্দিন আনসারী, আবদুল করিম সেলিম, ছাত্রসেনা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি আমির হোসেন, সাধারণ সম্পাদক জহির উদ্দিন,সাংগঠনিক সম্পাদক নূর রায়হান চৌধুরী। উপস্থিত ছিলেন,বাবুল সওদাগর, বেলায়ত হোসেন, মঈন উদ্দিন মোর্শেদ, আসিফুর রহমান, সাব্বির প্রমূখ। মানববন্ধনে নেতৃবৃন্দ বলেন পবিত্র ধর্ম ইসলামে পণ্য মজুতকে হারাম ঘোষনা করা হয়েছে। তারপরও রমজানকে সামনে রেখে মজুত ব্যবসায় নেমে পড়েন। আর এভাবে মজুত করার কারনে স্বল্প আয়ের জনগোষ্ঠি প্রয়োজনীয় পণ্য ক্রয়ে জঠিলতার সম্মুখীন হয়। তাই নিজের সুবিধার্থে অন্যের জন্য প্রতিবন্ধকতা সৃষ্ঠি করা কোন ধর্মই সমর্থন করবে না। অনেক নিত্যপণ্য এমনকি চাল, ডাল,চিনি,চনা, ভোজ্যতৈল, সাবান, হ্যান্ডস্যানিটাইজার, স্যাবলন, অক্সিজেন সিলিন্ডারসহ সবকিছুই মজুত করে নিজের বাসগৃহকে গুদামে পরিনত করেন, যা অমানবিক।একদিকে করোনা মহামারি অন্যদিকে নিত্যপ্রয়োজনীয় ভোগ্য পণ্যের চরম উর্ধ্বগতিতে মধ্যেবিত্ত ও সাধারণ মানুষের জনজীবন অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে। একশ্রেণীর ব্যবসায়ী অসাধু আমলার যোগসাজশে ব্যবসা নিয়ন্ত্রণ করে অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছে। যেখানে সাধারণ জনগন লগডাউনের কবলে পড়ে নিঃস্ব হয়ে পথে বসার উপক্রম সেখানে বাণিজ্যিক সিন্ডিকেট নতুন ভাইরাসের জন্ম দিচ্ছে। অনতিবিলম্বে সিন্ডিকেট কারীদের আইনের আওতায় আনার জোরদাবী।
অন্যদিকে কারণ ছাড়ায় গণপরিবহনে ভাড়া বৃদ্ধি, এক সিটে একজন করে বসার সিদ্ধান্ত দিলেও কিন্তু একজন যাত্রী নামার পর অন্য যাত্রী গিয়ে বসছে। স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত না করে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় সম্পূর্ণ বেইনী।