চন্দনাইশ পৌরসভা নির্বাচনে মনোনয়নপত্র যাচাই বাছাই সম্পন্ন

প্রকাশিত: 6:43 PM, January 19, 2021

চন্দনাইশ প্রতিনিধিঃ

চন্দনাইশ পৌরসভা নির্বাচনে প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র যাচাই বাছাই সম্পন্ন হয়েছে। মঙ্গলবার (১৯ জানুয়ারি) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত চন্দনাইশ উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে এই যাচাই-বাছাই সম্পন্ন হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও রিটার্নিং কর্মকর্তা ইমতিয়াজ হোসেন, উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা মিনহাজুল ইসলাম, চন্দনাইশ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ নাসির উদ্দীন সরকার। মনোনয়নপত্র বাছাইকালে এলডিপির এক মেয়র প্রার্থী ও ১০ কাউন্সিলর সহ ১১ জনের মনোনয়নপত্র বাতিল হয়েছে। মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই শেষে পাঁচ জন মেয়র প্রার্থী, ৪১ জন সাধারণ কাউন্সিলর প্রার্থী ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর ৯ জন প্রার্থীর বৈধ তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। যাঁদের মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে তাঁরা আগামী ৩দিনের মধ্যে জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে আপিল করতে পারবেন বলে জানা গেছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও রিটার্নিং কর্মকর্তা ইমতিয়াজ হোসেন জানান, মেয়র পদে ৬ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছিলেন। এরমধ্যে ঋণ খেলাপি ও তথ্য গোপন করার কারনে এলডিপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী আইনুল কবিরের মনোনয়নপত্র বাতিল হয়েছে। অপর ৫ জনের মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে। এছাড়া সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৫১ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছিলেন। তন্মধ্যে ১০জনের মনোনয়ন পত্র বাতিল করা হয়েছে। ৩, ৪, ৮ ও ৯ নং ওয়ার্ডের সকল প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করা হয়।

অপরদিকে মামলা সংক্রান্ত তথ্য গোপন করায় ১নং ওয়ার্ডের মো. শাহেদুল ইসলামের মনোনয়ন পত্র বাতিল করা হয়। ২নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী কেএম হামিদ উদ্দিন ও মোঃ কামাল হোসেন চৌধুরী ঋণ খেলাপি হওয়ায় এবং মো. মোজাম্মেল ইসলাম সোহেল ও মোঃ ইউসুফ মামলা সংক্রান্ত তথ্য গোপন করায় মনোনয়ন পত্র বাতিল করা হয়। ঋণ খেলাপি হওয়ায় ৪নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী মোঃ গোলাম মোস্তফার মনোনয়ন বাতিল করা হয়। ৬ নং ওয়ার্ডে ঋণ খেলাপি হওয়ায় মোঃ সৈয়দ এবং মামলা সংক্রান্ত তথ্য গোপন করায় সরওয়ার ইসলামের মনোনয়ন বাতিল করা হয়। ৭নং ওয়ার্ডে মামলা সংক্রান্ত তথ্য গোপন করায় মোঃ মোজাম্মেল হক চৌধুরী এবং ঋণ খেলাপি হওয়ায় মোঃ আবু ছাদেকের মনোনয়ন বাতিল করা হয়।

এছাড়া সংরক্ষিত মহিলা আসনে ৯জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছিলেন। সকলের মনোনয়নপত্র বৈধ হয়েছে। আগামী ২৬ জানুয়ারি প্রার্থীতা প্রত্যাহার ও ১৪ ফেব্রুয়ারি ভোট গ্রহণ হবে। পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডের ১৬টি কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হবে এ ভোট গ্রহণ।

১৭.০৮ বর্গ কি.মি. আয়তনের এই পৌরসভায় আসন্ন নির্বাচনে মোট ভোটারের সংখ্যা ২৮ হাজার ৯শ’ ৯৭ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১৫ হাজার ১শ ৯৯ জন ও মহিলা ভোটার ১৩ হাজার ৭শ ৯৮ জন।