মহানবী (দ.) ও কুরআন অবমাননার প্রতিবাদে ইসলামী ফ্রন্ট চট্টগ্রাম উত্তর জেলার মানববন্ধন ও বিক্ষোভ

প্রকাশিত: 7:31 AM, September 9, 2020

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

পবিত্র কুরআন শরিফ পোড়ানো এবং মহানবী (দ.) কে নিয়ে ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশের প্রতিবাদে ইসলামী ফ্রন্ট, যুবসেনা ও ছাত্রসেনার মানববন্ধনে বক্তারা
কুরআন শরিফ পুড়িয়ে বিশ্ব মুসলমানকে দাবিয়ে
রাখা যাবে না, বরং বিশ্বে ক্ষোভের বহ্নিশিখা জ্বলবে
সুইডেনে উগ্র খ্রিস্টান কর্তৃক কুরআন শরিফ পুড়িয়ে দেয়া এবং ফ্রান্সে শার্লি এবদো পত্রিকায় মহানবী (দ.) কে নিয়ে ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশের প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ, মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করেছেন বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট, যুবসেনা ও ছাত্রসেনা চট্টগ্রাম উত্তর জেলা শাখা। চট্টগ্রাম জমিয়তুল ফালাহ্ জাতীয় মসজিদ চত্বরে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। অদ্য ৮ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার বিকালে অনুষ্ঠিত মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন চট্টগ্রাম উত্তর জেলা ইসলামী ফ্রন্টের সভাপতি মাওলানা মুহাম্মদ ওবাইদুল মোস্তফা কদমরসুলি। প্রধান অতিথি ছিলেন ইসলামী ফ্রন্টের কেন্দ্রীয় প্রচার সচিব মাওলানা মুহাম্মদ রেজাউল করিম তালুকদার। বাংলাদেশ ইসলামী যুবসেনা চট্টগ্রাম উত্তর জেলার সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ আলমগীর হোসাইন ও উত্তর জেলা ছাত্রসেনার সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ আজাদ রানার সঞ্চালনায় বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন ইসলামী ফ্রন্ট নেতা অধ্যাপক মাওলানা আব্দুর রহিম মুনিরী, মাওলানা আব্দুল খালেক আলকাদেরী, মাওলানা ইয়াছিন হোসাইন হায়দারী, মুহাম্মদ এনামুল হক সিদ্দিকী, মুহাম্মদ হারুন সওদাগর, মাওলানা ইকবাল হোসেন আলকাদেরী, অধ্যাপক মুহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন, যুবসেনা নেতা মাস্টার মুহাম্মদ ইসমাইল, মুহাম্মদ শাহজাহান, আজিম উদ্দিন আহমেদ, মুহাম্মদ মামুনুর রশিদ জাবের, মুহাম্মদ মোজাহেদুল ইসলাম, কাজী মুহাম্মদ শওকত উদ্দিন, ছাত্রসেনা নেতা মুহাম্মদ এনামুল হক মুন্না, কাজী মুহাম্মদ কায়েছ উদ্দিন, মুহাম্মদ তৌহিদুল ইসলাম, মুহাম্মদ মুশফিক এলাহী, মুহাম্মদ সৌরভ প্রমুখ।
বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তারা বলেন, কুরআন মজিদ হচ্ছে মহান আল্লাহর পক্ষ হতে প্রিয় নবীর (দ.) ওপর অবতীর্ণ ঐশী গ্রন্থ। যার হেফাজতকারী স্বয়ং আল্লাহ। কুরআন শরিফ পুড়িয়ে-অবমাননা করে উগ্র খ্রিস্টানরা কোটি কোটি মুসলমানদের অন্তরে ক্ষোভের বিহ্নিশিখা ছড়িয়ে দিয়েছে। কুরআন শরিফের অবমাননা করে বিশ্ব মুসলমানদের দাবিয়ে রাখার যেকোনো ধরণের অপচেষ্ঠার বিরুদ্ধে বিশ্ব মুসলমানদেরকে প্রতিরোধের বলয় গড়ে তুলতে হবে। ফ্রান্সের শার্লি এবদো পত্রিকায় মহানবী (দ.) কে নিয়ে ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশও ইসলাম-মুসলমান বিরোধী আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্রের অংশ। ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট বলেছেন, এটা নাকি গণমাধ্যমের স্বাধীনতা। অন্যের ধর্ম এবং ধর্মীয় ব্যক্তিত্বের অবমাননা করে বিকৃত কার্টুন প্রকাশ কখনো গণমাধ্যমের স্বাধীনতার আওতায় পড়ে না। এটা প্রচ্ছন্ন ফ্যাসিবাদী আচরণ, মুসলমানদের ক্ষেপিয়ে তুলে জঙ্গিবাদকে উস্কে দেয়া কখনো প্রত্যাশিত হতে পারে না। জাতিসংঘ, ওআইসি এবং আরব লীগকে এ ধরণের বিকৃত তৎপরতা থামাতে কঠোর আইনগত পদক্ষেপ নেয়ার আহ্বান জানান বক্তারা। সমাবেশ শেষে বিক্ষোভ মিছিল নগরীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে।