হিজরি নববর্ষ ১৪৪২ উদযাপনে সারাদেশে তিন দিনের কর্মসূচি

প্রকাশিত: 9:25 AM, August 17, 2020

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

হিজরি নববর্ষ রাষ্ট্রীয়ভাবে আয়োজন ও
১ মহররম সরকারি সাধারণ ছুটি ঘোষণার দাবি
হিজরি নববর্ষ ১৪৪২ উদযাপনে চট্টগ্রামসহ সারাদেশে তিন দিনের কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছে। হিজরি নববর্ষ উদযাপন পরিষদের উদ্যোগে ১১ বারের মতো চট্টগ্রামে হিজরি নববর্ষ ১৪৪২ বরণ করা হবে। হিজরি নববর্ষ বরণে হিজরি নববর্ষ উদযাপন পরিষদের উদ্যোগে প্রস্তুতি সভা  (১৬ আগস্ট) রোববার নগরীর মোমিন রোডের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়। পরিষদের চেয়ারম্যান পীরজাদা মাওলানা মুহাম্মদ গোলামুর রহমান আশরফ শাহ এর সভাপতিত্বে এবং মহাসচিব মুহম্মদ এনামুল হক ছিদ্দিকীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত প্রস্তুতি সভায় আলোচনায় অংশ নেন আবু নাছের মুহাম্মদ তৈয়ব আলী, আ ব ম খোরশিদ আলম খান, সৈয়দ মুহাম্মদ আবু আজম, মুহাম্মদ শফিউল আলম শফি, মুহাম্মদ আমান উল্লাহ আমান, সৈয়দ মুহাম্মদ সালাউদ্দিন খোকন, মাছুমুর রশিদ কাদেরী, এটিএম রেজাউল মোস্তফা, মুহাম্মদ আলম শাহ, গাজী মুহাম্মদ জামাল উদ্দীন, মুহাম্মদ বদর উদ্দীন প্রমুখ। সভায় তিন দিনের কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়। আগামী ১৯ আগস্ট বুধবার সারাদেশে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে রাষ্ট্রীয়ভাবে হিজরি নববর্ষ পালন এবং ১ মহররম সরকারি সাধারণ ছুটি ঘোষণার দাবিতে স্মারকলিপি প্রদান, ২০ আগস্ট বৃহস্পতিবার সারা দেশে প্রত্যেক উপজেলায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মাধ্যমে একই দাবিতে স্মারকলিপি প্রদান এবং আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল আয়োজন, ২১ আগস্ট শুক্রবার হিজরি নববর্ষ ১৪৪২ বরণে সারাদেশে সকল মসজিদে হিজরি নববর্ষের তাৎপর্য ও গুরুত্ব নিয়ে আলোচনা ও দোয়া মাহফিল এবং হিজরি নববর্ষ উদযাপন পরিষদের আয়োজনে বর্ষবরণ অনুষ্ঠান বিকেল ৪টায় নগরীর মোমিন রোডের কার্যালয়ে। সভাপতির বক্তব্যে মাওলানা গোলামুর রহমান আশরফ শাহ বলেন, হিজরি নববর্ষ উদযাপনের মাধ্যমে আমাদেরকে নিজস্ব কৃষ্টি সংস্কৃতি তুলে ধরতে হবে। সাংস্কৃতিক উজ্জীবন ও মননশীল ইসলামী সংস্কৃতি বিকাশের মাধ্যমে পরিশুদ্ধ আলোকিত মানুষ গড়তে হবে। তিনি মধ্যপ্রাচ্য সহ অন্যান্য মুসলিম দেশগুলোর মতো ১ মহররম সারাদেশে সাধারণ ছুটি ঘোষণা এবং রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দিবসটি পালনের দাবি জানান।